ফের ইডির জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হলেন রিয়া চক্রবর্তী ও তাঁর বাবা-ভাই

নিজস্ব সংবাদদাতা খবর ২৪: সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) মৃত্যুর পর ক্রমশই যেন রহস্য ঘনীভূত হচ্ছে। সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে প্রতারণা করে অভিনেতার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার এবং তাঁকে আত্মহত্যা করার বিষয়ে প্ররোচনা দেওয়ার মতো মারাত্মক সব অভিযোগ উঠেছে। সুশান্তের মৃত্যু মামলার তদন্তে আজ (সোমবার) ফের একবার অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী (Rhea Chakraborty) এবং তাঁর পরিবারের দুই সদস্য এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হলেন। আগেই ওই ৩ জনকে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার (Enforcement Directorate) সামনে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। সেই নির্দেশ মেনে আজও (সোমবার) ইডির মুখোমুখি হল অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী, তাঁর ভাই শৌভিক চক্রবর্তী এবং বাবা ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী। তবে এর পাশাপাশি সুশান্ত সিং রাজপুতের বন্ধু সিদ্ধার্থ পিঠানিকেও তলব করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টর। শনিবার তাঁর ইডির দফতের আসার কথা থাকলেও তিনি সেই সমন উপেক্ষা করেছিলেন।এই নিয়ে দ্বিতীয়বার ইডির জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হলেন রিয়া চক্রবর্তী এবং তাঁর বাবা। পাশাপাশি রিয়ার ভাইকে এই নিয়ে তৃতীয়বার ইডির প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হলো।গত শুক্রবার রিয়া চক্রবর্তীকে ৯ ঘন্টারও বেশি সময় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। একটি সূত্র জানিয়েছে, রিয়ার ভাই এবং সুশান্তের প্রাক্তন ম্যানেজার শ্রুতি মোদিকেও মুম্বইয়ে ইডির কার্যালয়ে আলাদাভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।সুশান্তের বাবা ছেলের অ্যাকাউন্ট থেকে ১৫ কোটি টাকা তছরুপের অভিযোগ তুললে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে রিয়া চক্রবর্তী ও আরও ৫ জনের বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতির মামলা করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের পরিবার একটি এফআইআর দায়ের করে। সেখানে অভিযোগ করা হয় যে, সুশান্তের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রচুর টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন রিয়া। তাছাড়া অভিনেতাকে মানসিকভাবে নির্যাতন করতেন তিনি, এমন অভিযোগও করেছেন সুশান্তের বাবা।তবে অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের ঘনিষ্ঠ কিছু সূত্র জানিয়েছে যে, যেহেতু রিয়া সুশান্তের সঙ্গেই লিভ টুগেদার করতেন এবং তাঁরা একসঙ্গে ছুটি কাটাতেও যেতেন তাই দুজনের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে একে অপরের সঙ্গে আর্থিক লেনদেন করা কিছু অস্বাভাবিক ছিল না। শুধু তাই নয়, সুশান্ত রাজপুত বান্ধবী চক্রবর্তী এবং তাঁর পরিবারের সঙ্গে দুটি ব্যবসায়িক সংস্থাও চালু করেছিলেন। সেই সংস্থাগুলোর আর্থিক লেনদেন নিয়েও প্রশ্ন তোলে বিহার পুলিশ।শুক্রবার ইডির জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হওয়ার পরের দিনই একটি বোতলের ছবি পোস্ট করে অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী দাবি করেন যে সুশান্তের শুধুমাত্র ওই একটি জিনিসই তাঁর কাছে রয়েছে। তাঁর পোস্ট করা সেই ফ্লাস্কের ছবিতে ছিছোঁড়ে লেখা রয়েছে। এই বোতলের সঙ্গেই সুশান্তের হাতে লেখা একটা নোটবইয়ের পাতাও সোশ্যাল মাধ্যমে পোস্ট করেন রিয়া। সেই নোটবইয়ে জীবনের সাতটি প্রাপ্তির নাম উল্লেখ করেছেন সুশান্ত সিং রাজপুত।সেই নোটে লেখা, “আমি কৃতজ্ঞ জীবনের জন্য। লিলুর জন্য, বেবুর জন্য, স্যারের জন্য, মামের জন্য আর ফাজের জন্য।” এই নোট প্রসঙ্গে লিখতে গিয়ে রিয়া লিখেছেন, “এটা সুশান্তের লেখা। লিলু আমার ভাই শৌভিক, বেবু আমি। স্যার আমার বাবা আর মাম আমার মা এবং ফাজ ওর পোষ্য।”