ভারত এমনভাবে স্বাগত জানাবে যে মনে রাখবেন ট্রাম্প: প্রধানমন্ত্রী মোদি

নিজস্ব সংবাদদাতা খবর ২৪: নয়া দিল্লি: চলতি মাসের শেষের দিকেই ভারত সফরে (Donald Trump’s India Visit) আসছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্টের আসন্ন সফর উপলক্ষে তাঁকে টুইটে স্বাগত জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। “এই সফর ভারত-মার্কিন বন্ধুত্বকে আরও দৃঢ় করতে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাবে”, টুইট তাঁর (Narendra Modi)। আগামী ২৪ ও ২৫ ফেব্রুয়ারি সস্ত্রীক ভারত সফরে আসছেন ট্রাম্প, এ দেশে এসে গুজরাটের আমেদাবাদ এবং নয়া দিল্লিতে যাবেন তিনি (Donald Trump)। ভারতের (India) তরফ থেকে এমনভাবে স্বাগত জানানো হবে যে তা চিরদিন মনে রাখবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প, একথাও বলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। প্রধানমন্ত্রী মোদি টুইটে লেখেন, “ভারত আমাদের সম্মানিত অতিথিদের মনে রাখার মতো করে স্বাগত জানাবে। এই সফর একটি বিশেষ সফর এবং এটি ভারত-মার্কিন বন্ধুত্বকে আরও দৃঢ়তর করতে সাহায্য করবে, আরও অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাবে দু’দেশের সম্পর্ককে”।প্রধানমন্ত্রী আরও লেখেন, “ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গণতন্ত্র ও বহুত্ববাদের পক্ষে একসঙ্গে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমাদের দেশ বিভিন্ন বিষয়ে ব্যাপকভাবে সহযোগিতা করছে। আমাদের দুই জাতির মধ্যে এই দৃঢ় বন্ধুত্ব কেবল আমাদের নাগরিকদের জন্য নয়, সমগ্র বিশ্বকেও অনুপ্রাণিত করেছে” । “ভারত সফরের অপেক্ষায় রয়েছি”: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, সোমবারই হোয়াইট হাউসের প্রেস সচিব স্টেফানি গ্রিশম জানান, “উইকএন্ডে একটি ফোনালাপে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং প্রধানমন্ত্রী মোদি, দুজনেই একমত হয়েছিলেন যে এই সফর ভারত-মার্কিন কৌশলগত অংশীদারিত্বকে আরও জোরদার করবে এবং দুই দেশের মানুষের মধ্যে বন্ধন আরও দৃঢ় করবে”। হোয়াইট হাউসের বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে, “প্রেসিডেন্ট ও ফার্স্ট লেডি দিল্লি ও আমেদাবাদ সফরে যাবেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজ্য গুজরাটেই অবস্থিত আমেদাবাদ এবং মহাত্মা গান্ধির জীবনে ও ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে এই স্থানটির একটি বিশেষ অবদান রয়েছে।” এদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওভাল কার্যালয় থেকে সাংবাদিকদের সামনে উপস্থিত হয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁর আসন্ন ভারত সফর সম্পর্কে বলেন, “আমি ভারত সফরের অপেক্ষায় আছি”। “তিনি (প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি) আমার বন্ধু। তিনি একজন দারুণ ব্যক্তি”, এক প্রশ্নের জবাবে বলেন ট্রাম্প।ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভারত সফরের সময়েই ভারত ও আমেরিকার মধ্যে নতুন করে বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে একটি সূত্র জানিয়েছে। তবে ট্রাম্পের ভারত সফরের মূল উদ্দেশ্য এই বাণিজ্য চুক্তি হলেও দু’দেশের সর্বোচ্চ নেতৃত্বের মধ্যে সন্ত্রাসবাদ রোধে একসঙ্গে পদক্ষেপ নেওয়া সহ আরও নানা বিষয়েও আলোচনা হবে বলে মনে করা হচ্ছে। পাশাপাশি আশা করা হচ্ছে এই সময় ভারত আমেরিকার কাছ থেকে সামরিক অভিযানে ব্যবহারের সক্ষম অ্যাপাচে হেলিকপ্টার কেনার বিষয়ে চুক্তি করতে পারে। এছাড়াও অস্ত্রবাহী ড্রোন কেনারও সম্ভাবনা রয়েছে এ দেশের। Indo-US Trade Deal: ট্রাম্পের ভারত সফরের সময়েই স্বাক্ষরিত হতে পারে নয়া চুক্তি এদিকে তাঁকে স্বাগত জানাতে ভারতে অসংখ্য মানুষ অপেক্ষায় থাকবেন জেনে একটু হলেও টেনশনে রয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেন, “যখন আমাদের এখানে ৫০,০০০ মানুষ একসঙ্গে হাজির হন, তখনই আমি খুব একটা স্বস্তি বোধ করি না … আর ভারতে তো শুনছি বিমানবন্দর থেকে নতুন স্টেডিয়াম পর্যন্ত পাঁচ থেকে সাত মিলিয়ন মানুষ থাকবেন আমায় স্বাগত জানাতে। আসলে এটা বিশ্বের বৃহত্তম স্টেডিয়াম। এটা তাঁরা তৈরি করছিলেন। এটা তৈরির কাজ প্রায় সম্পূর্ণ”।জানিয়ে রাখি, আনুমানিক ১০০ মিলিয়ন ডলার খরচ করে গুজরাটের আমেদাবাদে মোতেরা স্টেডিয়ামটি তৈরি হয়েছে, এই স্টেডিয়ামে একসঙ্গে ১ লক্ষ দর্শক বসতে পারবেন।